কোভিড -১৯ মহামারী পরিস্থিতিতে ব্যাঙ্কিং চ্যালেঞ্জ এবং সুযোগ

১৭৩

Get real time updates directly on you device, subscribe now.


চট্টগ্রাম ব্যুরো:
রবির সৌজন্যে, বিএমসিসিআই ওয়েব টক সিরিজ, সেশন -৮ -এ, “কোভিড -১৯ মহামারীএবং মহামারী পরিস্থিতিতে ব্যাংকিং চ্যালেঞ্জ এবং সুযোগ”, শীর্ষক ওয়েবিনার
এর আয়োজন করা হয় I
অংশগ্রহণকারীদের স্বাগত জানিয়ে বাংলাদেশ-মালয়েশিয়ার চেম্বার অব কমার্সঅ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির  (বিএমসিসিআই) সভাপতি, রাকিব মোহাম্মদ ফখরুল বলেন,
দেশের ব্যাংকিং ব্যবস্থা এখন অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি এবং চলমান মহামারীটি অর্থনীতিতে তার প্রভাব ফেলছে। অর্থনৈতিক সমস্যাগুলি, যখন উদ্বেগজনক ভাবে বেড়ে যায় এবং সংশ্লেষিত হয়, সামাজিক সংহতিকে তা ব্যাপকভাবে
প্রভাবিত করে। এই নতুন বাস্তবতা সিনিয়র ব্যাংকের কর্মকর্তাদের উদ্বিগ্ন করে তুলছে কারণ লাভজনকতা, তরলতা এবং মূলধন সহ একাধিক পারফরম্যান্স
মেট্রিকের বিষয়ে অদূর ভবিষ্যতের প্রজ্ঞাপনটি কিছুটা উদ্বেগজনক।

তিনি আরও বলেন , বর্তমান  ব্যাঙ্কিং প্রাক-মহামারীকালীন সময়ের চেয়ে অনেকবেশি আলাদা। অনেক ব্যাংক তাদের কর্মীদের মূল ব্যাংকিং সফটওয়্যার এবং সুনির্দিষ্ট তথ্যপ্রযুক্তি নেটওয়ার্কিংয়ের মাধ্যমে চতুর্থ প্রজন্মের
আইটিসি সহায়তায় বাড়ি থেকে কাজ করার অনুমতি দিয়েছে। কিছু ব্যাংক তাদের সুপ্রতিষ্ঠিত কেন্দ্রীভূত ব্যাংকিং মডেলের বর্তমান ‘নতুন স্বাভাবিক’ পরিস্থিতিতে সুবিধা গ্রহণ করে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্চে I তবে আধুনিক
প্রযুক্তি বাস্তবায়নের অভাবে কিছু ব্যাংক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে।
ব্যাংকগুলির গ্রাহক বেস বজায় রাখতে এবং ব্র্যান্ডের মান বাড়ানোর জন্য নতুন স্বাভাবিক সময়ে এবং মহামারী পরবর্তী পরিস্থিতে গ্রাহকের চাহিদা মেটাতে বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে গুরুত্বারোপ করার কথা বলেন।

অধিবেশনটির বক্তা, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের (এমটিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিভার উক্তিটি উল্লেখ করে তার
উপস্থাপনা শুরু করেন, “১৯৩০-এর দশকের মহা ডিপ্রেশন  এর পর ২০২০ সাল বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক পতন দেখা যাবে যা, ২১০ টিরও বেশি দেশকে আক্রান্ত করেছে I ক্রমবর্ধমান করোনভাইরাস মহামারীজনিত কারণে মাথাপিছু জিডিপি বৃদ্ধি নেতিবাচক হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে।” তিনি বলেন, রফতানি ও আমদানি গত কয়েক মাসের মধ্যে প্রায় ৪০% হ্রাস পেয়েছে যা ব্যাংকসহ সমস্ত
ব্যবসায়িক খাতে প্রভাব ফেলছে।

তিনি মহামারী পরবর্তী সময়ে দেশের অর্থনীতি নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমান শীর্ষক আলোচনা করেন। প্রতিবেদনে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, রফতানি ও আমদানি,
বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের মতো সমস্ত বড় সূচকগুলির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে এবং দেখা গেছে যে পরের বছর থেকে বেসরকারী খাতের ক্রেডিট প্রবৃদ্ধি দ্রুত পুনরুদ্ধার করবে। যদিও দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এই বছরে
৩.৮ শতাংশে নেমে যাবে, তবে অর্থবছর ২০২১-২২২২ -এ এটি ৮ শতাংশে পৌঁছে যাবে।

এরপরে তিনি বলেন, বর্তমানে ব্যাংকিং খাত পারফরম্যান্স বিহীন ঋণ, স্বল্প সুদের হারে ব্যবধান হ্রাস, বিভিন্ন দক্ষতা সূচকের অবনতি, সরকার পরিচালিত ঋণ পূনর্গঠন, ঋণ যোগ্য তহবিলের চাহিদা হ্রাস ইত্যাদি নিয়ে কঠোর লড়াই করছে।
তিনি আরও বলেন, এখন সময় এসেছে সমস্ত ব্যাংক গ্রাহকের প্রয়োজনীয়তা নতুন স্বাভাবিক ও মহামারী পরবর্তী সময়ে পূরণের জন্য সনাতন পদ্ধতি থেকে বেরিয়ে
কেন্দ্রিয় অপারেশন পদ্ধতিতে তাদের অপারেশন পদ্ধতি পরিবর্তন করার। কাগজপত্র হ্রাস, স্বতন্ত্র ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং প্যাকেজ সরবরাহের মাধ্যমে, গ্রাহককে শিক্ষিত করে, স্বয়ংক্রিয় স্বাক্ষর, স্বয়ংক্রিয় লেনদেন, আন্তঃসংযুক্ত
নেটওয়ার্ক নির্মাণ, ডিজিটাল রেকর্ডিং, সংরক্ষণাগার, বৈদ্যুতিন চ্যানেল ইত্যাদি তৈরি করার মাধ্যমে যদি আমরা এই মহামারীটিতে ভার্চুয়াল ব্যাংকিং গ্রহণ করতে প্রস্তুত থাকি তবে বেশিরভাগ ব্যাংকিং বাড়ি থেকে করা যেতে পারে ।

তিনি এটিএম বুথ থেকে অর্থ প্রত্যাহারের সীমা বাড়ানোর প্রতি  জোর দিতে ব্যাঙ্ক গুলোর প্রতি আহ্বান জানান এবং মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে কিস্তি ও ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধ করার পরামর্শ দেন। তিনি
আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে ব্যাংকগুলিকে ক্লায়েন্ট এবং ব্যাংকারদের জন্য তুলনামূলক কম জনবহুল এবং সুরক্ষিত রাখতে এই প্রচেষ্টাগুলি অত্যন্ত কার্যকর হবে।

রাকিব মোহাম্মদ ফখরুল, সভাপতি, সৈয়দ মোয়াজ্জাম হোসেন, প্রাক্তন সভাপতি এবং মাহবুবুল আলম, মাননীয় সেক্রেটারি জেনারেল, বিএমসিসিআই, ইন্টারেক্টিভ
অধিবেশনে অংশ নেন এবং বেশ কিছু   প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন উত্থাপন করেন।

বিএমসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ সৈয়দ মঈনুদ্দিন আহমেদ, ইন্টারেক্টিভ অধিবেশনটি পরিচালনা করেন এবং পুরো ওয়েবিনারে সঞ্চালকের  ভূমিকা পালন করেন।

বিএমসিসিআই সদস্য, নেতৃস্থানীয় চেম্বারস অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি, ব্যাংকার, সরকারী কর্মকর্তা, ব্যবসায়িক নেতৃবৃন্দ, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব এবং
সাংবাদিকবৃন্দ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy
শীর্ষ সংবাদ
লকডাউনে বিপর্যস্ত দেশের নিম্ন শ্রেণির মানুষেরা।রাজধানীর সড়কে আজ বেড়েছে যানবাহনের সংখ্যা।বরগুনার উপজেলার ২০২১ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নব – নির্বাচিত সকল চেয়ারম্যানদেরকে শপথ পাঠলকডাউনে দ্বিতীয় দিনের সেনাবাহিনীর কার্যক্রম।দেশে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর নতুন রেকর্ডকঠোর লকডাউন, বন্ধ সরকারি ও বেসরকারি সব অফিস। Liveমন্ত্রিপরিষদের প্রথম সদস্য হিসেবে করোনা টিকা নিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আদমেদ পলক।23-01-2020 News Flashtoday news flash১ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার নাইকো মামলার অভিযোগ শুনানিউইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের ওয়ানডে স্কোয়াডে ৩ নতুন মুখপৌর নির্বাচনেও ভোট কেন্দ্র ক্ষমতাসীনদের দখলে : খন্দকার মোশাররফরোববার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিতরণ করবেন প্রধানমন্ত্রীকরোনায় আরো ২১ জনের মৃত্যু,নতুন শনাক্ত ৫৭৮